শুক্রবার , ৪ জুন ২০২১ | ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  1. অনুষ্ঠান
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. করোনা সচেতনতা
  6. করোনাভাইরাস
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চাকরীর খবর
  10. জাতীয়
  11. টিভি Live
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. দেশ জুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী-ও-শিশু

সেই অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতেই নাম নেই ফুটবলারদের, আছে জামালদের

প্রতিবেদক
ltvofficial
জুন ৪, ২০২১ ১০:৩৯ অপরাহ্ণ

মনে আছে? ২০১৫ সালের ৩ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ার পার্থ ওভালে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ম্যাচের সময় স্থানীয় এক ধারাভাষ্যকার কিভাবে বাংলাদেশের জার্সি নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করেছিলেন? কারণ ঐ ম্যাচে যে জার্সি পরেছিল বাংলাদেশ তাতে নাম ছিল না ফুটবলারদের।

সেই ম্যাচের পরদিন অস্ট্রেলিয়ান একটি পত্রিকা লিখেছিল, ‘বিশ্বের ১৭৩ নম্বর দলের কাছ থেকে আর কী আশা করা যায়,? ওদের তো লাল-সবুজ জার্সিতে নাম পর্যন্ত ছিল না।’ তখন বাংলাদেশের ফিফা র‍্যাংকিং ছিল ১৭৩।

অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমের নেতিবাচক মন্তব্যের পর বাফুফের শীর্ষ কর্মকর্তাদের পড়তে হয়েছিল সমালোচনার মুখে। বাংলাদেশের জার্সিতে কেন খেলোয়াড়দের নাম নেই- এমন অনেক প্রশ্নে জর্জিত হয়েছিলেন কাজী মো. সালাউদ্দিন ও সালাম মুর্শেদিরা। এবার ৬ বছর পর মাঠে উল্টো চিত্র।

বৃহস্পতিবার এশিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে যে দেশগুলো মাঠে নেমেছিল তার মধ্যে অস্ট্রেলিয়াও ছিল। কুয়েত সিটিতে তারা স্বাগতিকদের বিপক্ষে যে জার্সি পরেছিল সেখানে খেলোয়াড়ের নাম ছিল না।

কিন্তু আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ খেলেছে খেলোয়াড়দের নাম সম্বলিত জার্সি পরেই। বৃহস্পতিবারের ম্যাচগুলোর ছবি ঘেঁটে দেখা গেছে একমাত্র বাংলাদেশের জার্সিতেই ছিল খেলোয়াড়দের নাম।

জার্সিতে খেলোয়াড়দের নাম থাকাটা বাধ্যতামূলক নয়, দলগুলোর খুশি। জার্সিতে খেলোয়াড়দের নাম দেয়া বাড়তি ঝামেলা, একটা চ্যালেঞ্জও। কারণ ২০১৫ সাল থেকে এএফসির নির্দেশনা, স্কোয়াডের খেলোয়াড়দের জার্সির নম্বর হতে হবে ১ থেকে ২৩ পর্যন্ত। ১ নম্বর জার্সি কেবল গোলরক্ষকের জন্য বাধ্যতামূলক। অন্য ২২টি যে যার খুশি।

জার্সিতে খেলোয়াড়দের নাম রাখলে সমস্যা দেখা দেয় স্কোয়াডে পরিবর্তন আনলে। তখন নতুন একটা জার্সি তৈরি করতে হয় বা বিকল্প ব্যবস্থা রাখতে হয়। নাম না দিলে এ সমস্যা হয় না। নম্বরসহ একটি জার্সি পরলেই হলো।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ স্কোয়াডে যে ২৩ জন ছিলেন সেখান থেকে ইনজুরিতে ছিটকে গেছেন সোহেল রানা। পরের দুই ম্যাচে ২৩ জনে ঢুকবেন ইব্রাহিম। এখন ইব্রাহিমকে ২ থেকে ২৩ এর মধ্যে একটা নম্বর দিতে হবে। সেই নম্বরের পাশাপাশি জার্সিতে তার নামও থাকতে হবে।

দোহা থেকে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার ইকবাল হোসেন বলেছেন, ‘আমরা অতিরিক্ত জার্সি নিয়ে এসেছি। ইব্রাহিমের জার্সিতে ওর নাম আছে। এখন তাকে যে নম্বর দেয়া হবে সেটা প্রিন্ট করিয়ে আনতে হবে। করোনার সময় আমরা কেউ বাইরে যেতে পারব না। লিয়াজোর মাধ্যমে করিয়ে আনতে হবে।’

নামসহ জার্সিতে একটা বাড়তি ঝামেলা বলেই বেশিরভাগ দেশই এখন নাম লেখার পথে হাঁটে না। ২৩টি জার্সি বানিয়ে রাখলেই হয়। বাংলাদেশ অবশ্য এই জায়গায় এগিয়ে। কোনো দেশের জার্সিতে নাম না থাকলেও আছে জামাল ভূঁইয়াদের। ফিফা র‍্যাংকিংয়ের ৪১ নম্বর অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে খেলোয়াড়দের নাম নেই- সেটা কি ছাপা হবে দেশটির কোনো গণমাধ্যমে?

সর্বশেষ - জাতীয়